তিনশ ‘স্কুল অব ফিউচার’ প্রতিষ্ঠা করবে সরকার (যুগান্তর রিপোর্ট)

তিনশ ‘স্কুল অব ফিউচার’ প্রতিষ্ঠা করবে সরকার (যুগান্তর রিপোর্ট)

খুদে গবেষক ও উদ্ভাবকদের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোয় স্কুল অব ফিউচার প্রকল্পের অধীন ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি ল্যাব গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

বৃহস্পতিবার ৮ অক্টোবর ২০২০ প্রতিমন্ত্রী জুম অনলাইনে সংযুক্ত হয়ে তৃতীয় বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াডের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ তথ্য জানান। তিনি বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে আরও রোবটিকস ল্যাব এবং স্কুল পর্যায়ের ল্যাবে ‘রোবট কর্নার’ স্থাপন হবে বলেও জানান।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, দেশে দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তুলতে আগামীতে ৩০০টি নির্বাচনী আসনভিত্তিক স্কুলে স্কুল অব ফিউচার প্রতিষ্ঠিত করা হবে। যেখানে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের ডিজরাপ্টেড টেকনোলজি বিষয়ে গবেষণার জন্য রোবটিকসের একটি ল্যাবের মতো থাকবে যেখানে অগমেন্টেড রিয়েলিটি, ভার্চুয়াল রিয়েলিটি বিষয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীরা জানতে পারবে। নতুন নতুন প্রযুক্তি সম্পর্কে হাতে-কলমে শিখতে পারবে। এর ফলে ১০-১৫ বছর পরে তারা যখন কর্মজীবনে প্রবেশ করবে তখন তারা এর থেকে উপকৃত হবে।

অলিম্পিয়াডের উদ্বোধন ঘোষণা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামান। স্বাগত বক্তব্য দেন বিসিসির প্রশিক্ষণ ও উন্নয়ন পরিচালক মোহাম্মদ এনামুল কবির। রোবট অলিম্পিয়াড কমিটির সভাপতি অধ্যাপক লাফিফা জামালের সঞ্চালনায় অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এনএম জিয়াউল আলম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স অ্যান্ড মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান ড. শামীম আহমেদ দেওয়ান বক্তব্য দেন। সভাপতিত্ব করেন অলিম্পিয়াড বাস্তবায়ন সহযোগী বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *